• Facebook
  • Yahoo
  • Google
  • Live
Afsana Hossain
by on March 27, 2019
5,236 views

অশ্লীলতা মানব চরিত্র ধ্বংসের অন্যতম হাতিয়ার । এটা সমাজকে কলুষিত ও ব্যাধিতে পরিণত করছে । বর্তমান সমাজে অশ্লীলতা ক্রমে ক্রমে বৃদ্ধি পাচ্ছে । যুবচরিত্র ও অন্যায়কে বৃদ্ধি করে তুলছে । অথচ মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে এ সম্পর্কে সাবধান করে বলেছেনঃ- " ﻭَﻟَﺎ ﺗَﻘْﺮَﺑُﻮﺍ ﺍﻟْﻔَﻮَﺍﺣِﺶَ ﻣَﺎ ﻇَﻬَﺮَ ﻣِﻨْﻬَﺎ ﻭَﻣَﺎ ﺑَﻄَﻦَ"
"প্রকাশ্যে বা গোপনে কোনো অশ্লীলতার নিকটবর্তী হয়ো না ।" (সূরা আন-আমঃ ৬:১৫১)

 

অশ্লীলতা হচ্ছে নিকৃষ্ট একটি কাজ । যা সমাজে মহামারি আকারে ধারন করেছে । যিনা বা ব্যভিচারের মূলে হচ্ছে অশ্লীলতা । ইসলাম যিনাকে হারাম করেছেন । মহান আল্লাহ তায়ালা বলেনঃ- " ﻭَﻟَﺎ ﺗَﻘْﺮَﺑُﻮﺍ ﺍﻟﺰِّﻧَﺎ ﺇِﻧَّﻪُ ﻛَﺎﻥَ ﻓَﺎﺣِﺸَﺔً ﻭَﺳَﺎﺀَ ﺳَﺒِﻴْﻠًﺎ "
"আর ব্যভিচারের কাছেও যেয়ো না । নিশ্চয়ই এটা অশ্লিল কাজ এবং মন্দ পথ ।" (সূরা বনী ইসরাঈলঃ ১৭:৩২)

 

অশ্লীলতা পাপকে বৃদ্ধি করে । মানুষের ভাল গুনগুলোকে নষ্ট করে দেয় । ক্রমাগত মানব চরিত্রকে অন্ধকারের দিকে নিয়ে যায় । সমাজের যত মন্দ কাজ রয়েছে সব অশ্লীলতার মাধ্যমে পরিচালিত হয় । অশ্লীলতা বৃদ্ধির কিছু কারণ রয়েছে । ইন্টারনেট তার মধ্যে অন্যতম । ইন্টারনেট যেমন আমাদের উন্নতির দিকে অগ্রসর করে তেমনি ধ্বংসের দিকে নিয়ে যায় । ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব ইত্যাদি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো সবচেয়ে বেশী ভূমিকা রাখে ।

 

অশ্লীলতা বৃদ্ধির আরেকটি কারণ হচ্ছে পর্ণোগ্রাফি । বিশ্বের মোট ওয়েবসাইটের ১২ শতাংশ হলো পর্ণোগ্রাফি । ৬৫.৫ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহারকারী পর্ণো দেখে । এ সকল ভিডিও দেখার মধ্যে ৭৭ শতাংশ স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা । এই পর্ণো দেখার মাধ্যমে তারা জড়িয়ে পরছে অবৈধ সম্পর্কে । নষ্ট হচ্ছে তরুণ সমাজ । মহান আল্লাহ তায়ালা বলেনঃ- "ﻗُﻞ ﻟِّﻠْﻤُﺆْﻣِﻨِﻴﻦَ ﻳَﻐُﻀُّﻮﺍ ﻣِﻦْ ﺃَﺑْﺼَﺎﺭِﻫِﻢْ ﻭَﻳَﺤْﻔَﻈُﻮﺍ ﻓُﺮُﻭﺟَﻬُﻢْ - ﻭَﻗُﻞ ﻟِّﻠْﻤُﺆْﻣِﻨَﺎﺕِ ﻳَﻐْﻀُﻀْﻦَ ﻣِﻦْ ﺃَﺑْﺼَﺎﺭِﻫِﻦَّ ﻭَﻳَﺤْﻔَﻈْﻦَ ﻓُﺮُﻭﺟَﻬُﻦَّ ﺍﻻﻳﺔ "
"মুমিনদেরকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টি নত রাখে এবং তাদের যৌনাঙ্গের হেফাযত করে । আর ঈমানদার নারীদেরকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টিকে নত রাখে এবং তাদের যৌনাঙ্গের হেফাযত করে ।" (সূরা আন-নূরঃ ২৪:৩০-৩১)

 

পর্দাহীনতা হচ্ছে অশ্লীলতা বৃদ্ধির আরেকটি কারণ । বর্তমানে নারীরা পর্দাকে একটি ফ্যাশনে পরিনত করেছে । পর্দার নাম করে অর্ধ উলঙ্গ হয়ে মাথায় হিজাব পড়ে । হিজাব এখন পর্দার জন্য নয়, দেখানোর জন্য শু অফ হয়ে গেছে । কে কার থেকে নিত্যনতুন ডিজাইন করে ব্যবহার করবে এ যেন আরেক প্রতিযোগিতা চলছে । এ সম্পর্কে মহান আল্লাহ তায়ালা বলেনঃ- " ﻳَﺎ ﺑَﻨِﻲ ﺁﺩَﻡَ ﻗَﺪْ ﺃَﻧﺰَﻟْﻨَﺎ ﻋَﻠَﻴْﻜُﻢْ ﻟِﺒَﺎﺳًﺎ ﻳُﻮَﺍﺭِﻱ ﺳَﻮْﺀَﺍﺗِﻜُﻢْ ﻭَﺭِﻳﺸًﺎ ﻭَﻟِﺒَﺎﺱُ ﺍﻟﺘَّﻘْﻮَﻯَ ﺫَﻟِﻚَ ﺧَﻴْﺮٌ"
"হে বনী-আদম আমি তোমাদের জন্যে পোশাক অবতীর্ণ করেছি, যা তোমাদের লজ্জাস্থান আবৃত করে এবং অবতীর্ণ করেছি সাজ সজ্জার বস্ত্র এবং পরহেযগারী পোশাক, এটি সর্বোত্তম ।" (সূরা আল আরাফঃ ০৭:২৬)

 

অশ্লীলতা বৃদ্ধির অন্যতম আরেকটি কারণ হচ্ছে পশ্চাত্যের দিকে ঝুঁকে পরা । আমরা আজকাল সিরিয়াল দেখে, টিভি দেখে, ওদের মত হওয়ার চেষ্টা করি । ওদের সংস্কৃতিকে নিজেদের মধ্যে চালিয়ে দিচ্ছি । সংস্কৃতির নামে বেহায়াপনা করে বেড়িয়েছি আমরা । কিন্তু মহান আল্লাহ তায়ালা ইসলামে আমাদের জন্য সংস্কৃতি তৈরি করে দিয়েছেন । তিনি বলেনঃ- ﺇِﻥَّ ﺍﻟﺪِّﻳﻦَ ﻋِﻨﺪَ ﺍﻟﻠّﻪِ" ﺍﻹِﺳْﻼَﻡُ"
"নিশ্চয়ই ইসলাম একমাত্র পূর্ণাঙ্গ জীবনব্যবস্থা ।" (সূরা আল ইমরানঃ ০৩:১৯)

 

অশ্লীলতা বৃদ্ধির আরেকটি কারণ হচ্ছে মাদকাসক্তি । নেশাগ্রস্ত ব্যক্তি এসব সেবনের জন্য সদা মরিয়া হয়ে থাকে । যখন তা সংগ্রহ করতে না পারে তখন বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ে । এজন্য রাসূল (সাঃ) বলেনঃ- ﻻَ ﺗَﺸْﺮَﺏِ " ﺍﻟْﺨَﻤْﺮَ ﻓَﺈِﻧَّﻬَﺎ ﻣِﻔْﺘَﺎﺡُ ﻛُﻞِّ ﺷَﺮٍّ "
"তুমি মদ পান কর না । কেননা মদ সকল অনিষ্টের মূল ।" (ইবনে মাজাহ হাঃ ৩৩৭১)

 

বিনোদনের জন্য বর্তমানে যে গান-বাজনা ও বাদ্যযন্ত্র চালানো হয় তা অশ্লীলতার অন্যতম উৎস । কোন কোন গানে এমন কুরুচিপূর্ণ উত্তেজক কথা থাকে যা তরুণ সমাজের উপর প্রভাবিত হয় । এবং পরিবার ও নিজেদের মধ্যে অশ্লীলতা ছড়াতে ভূমিকা রাখছে ।

 


আশ্লীলতা বৃদ্ধির আরেকটি কারণ হচ্ছে সহ-শিক্ষা । শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছেলে-মেয়ে সহ-শিক্ষা ও সহাবস্থানের ফলে প্রতিনিয়ত নানা দুর্ঘটনা ঘটছে। নবী (সাঃ) বলেছেনঃ- ﺍﻟﻤَﺮْﺃَﺓُ ﻋَﻮْﺭَﺓٌ، ﻓَﺈِﺫَﺍ " ﺧَﺮَﺟَﺖْ ﺍﺳْﺘَﺸْﺮَﻓَﻬَﺎ ﺍﻟﺸَّﻴْﻄَﺎﻥ "
"নারীরা আবরণীয় বস্তু । যখন সে বাইরে বের হয় তখন শয়তান তার দিকে চোখ তুলে তাকিয়ে থাকে।" (তিরমিযী হাঃ ১১৭৩)


জরিপে দেখা গেছে, সহশিক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলির ফলাফলের চেয়ে সহশিক্ষাবিহীন প্রতিষ্ঠানগুলির ফলাফল অনেক ভাল । সহশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনেক শিক্ষার্থী অল্প বয়সেই অবৈধ প্রেমে পড়ে এবং আত্মহত্যার পথ বেঁছে নেয় ।

 

নারী স্বাধীনতা অশ্লীলতার অন্যতম কারণ । স্বাধীনতার দোহায় দিয়ে তারা আজ রাসূলের আদর্শকে ভূলে যাচ্ছে । ভূলে যাচ্ছে তাদের জাহেলি যূগের অবস্থা । ইসলাম ধর্ম নারীদের সর্বোচ্চ মর্যাদা প্রদান করেছে । আর সেই মর্যাদার আজ অপব্যবহার করছে স্বাধীনতার নাম করে । মহান আল্লাহ তায়ালা বলেনঃ- " ﺇِﻥِ ﺍﺗَّﻘَﻴْﺘُﻦَّ ﻓَﻠَﺎ ﺗَﺨْﻀَﻌْﻦَ ﺑِﺎﻟْﻘَﻮْﻝِ ﻓَﻴَﻄْﻤَﻊَ ﺍﻟَّﺬِﻱ ﻓِﻲ ﻗَﻠْﺒِﻪِ ﻣَﺮَﺽٌ "
"যদি তোমরা আল্লাহকে ভয় কর তবে পরপুরুষদের সাথে কোমল কন্ঠে এমনভাবে কথা বলো না, যাতে ব্যাধিগ্রস্ত অন্তরের মানুষ প্রলুব্ধ হয় ।" (সূরা আল-আহযাবঃ ৩৩:৩২)

 

মঙ্গল শোভাযাত্রা, বসন্ত বরণ ও থার্টি ফার্স্ট নাইট এ ধরনের উৎসব হচ্ছে অশ্লীলতা সৃষ্টির আরেকটি মাধ্যম । উৎসবের নাম করে অর্ধ উলঙ্গ হয়ে, মাতাল অবস্থায় ছেলে মেয়ে এক সাথে নাচ-গান করে, এবং অবাধ যৌনাচারে লিপ্ত হয় । মহান আল্লাহ তায়ালা এ সম্পর্কে বলেনঃ- ﻭَﻣِﻦَ ﺍﻟﻨَّﺎﺱِ ﻣَﻦ ﻳَﺸْﺘَﺮِﻱ ﻟَﻬْﻮَ ﺍﻟْﺤَﺪِﻳﺚِ ﻟِﻴُﻀِﻞَّ " ﻋَﻦ ﺳَﺒِﻴﻞِ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﺑِﻐَﻴْﺮِ ﻋِﻠْﻢٍ ﻭَﻳَﺘَّﺨِﺬَﻫَﺎ ﻫُﺰُﻭًﺍ ﺃُﻭﻟَﺌِﻚَ ﻟَﻬُﻢْ " ﻋَﺬَﺍﺏٌ ﻣُّﻬِﻴﻦٌ
"এক শ্রেণীর লোক আছে যারা মানুষকে আল্লাহর পথ থেকে ভ্রান্ত করার উদ্দেশ্যে অন্ধভাবে গান-বাজনা ও বাদ্যযন্ত্র সংগ্রহ করে এবং তা নিয়ে ঠাট্রা বিদ্রূপ করে । এদের জন্য রয়েছে অবমাননাকর শাস্তি ।" (সূরা লোকমানঃ ৩১:০৬)

Posted in: Education, Society
Like (4)
Loading...
4