Categories

  • Facebook
  • Yahoo
  • Google
  • Live

Posted: 2020-03-29 13:51:19

টোকিওঃ বিশ্বজুড়ে মারাত্মক আকার নিয়েছে করোনা। একের পর এক দেশে মহামারীর মতো ছড়িয়ে পড়ছে মারণ এই ভাইরাস। বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক। জার্মানিতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। আর এরই মধ্যে রেললাইনের উপর থেকে উদ্ধার হল জার্মানির এক মন্ত্রীর ছিন্নভিন্ন দেহ। ওই মন্ত্রীর নাম থমাস শেফার বলে জানা যাচ্ছে।

জার্মানিতেও ইতিমধ্যে করোনা মহামারীর আকার নিয়েছে। ক্রমশ হাতের বাইরে যাচ্ছে সেখানকার পরিস্থিতি। আর সেই পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগের কারণেই ওই মন্ত্রী আত্মঘাতী হয়েছেন বলে জল্পনা। জার্মানির হেসের অর্থমন্ত্রী ছিলেন তিনি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। একই সঙ্গে এভাবে দেশের অর্থমন্ত্রীর আত্মঘাতী হওয়ার ঘটনায় শোকের ছায়া।

জানা গিয়েছে, ছুটে আসা হাইস্পিড ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন জার্মানির হেসের অর্থমন্ত্রী। ফ্রাঙ্কফুর্ট এবং মাইনজের মধ্যবর্তী হোচাইম শহরে হাইস্পিড ট্রেন লাইনের উপর থেকে শেফারের ছিন্নভিন্ন দেহটি উদ্ধার হয়। কিন্তু দেহ এমন ভাবে পুরো ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় যে প্রথমে বোঝাই যায়নি। উদ্ধারকারী দল গিয়ে উদ্ধার করে নিয়ে দেহটিকে। পরে বোঝা যায় দেহটি আসলে অর্থমন্ত্রীরই।

প্রাথমিকভাবে অনুমান, মানসিক অবসাদ থেকেই চলন্ত ট্রেনের সামনে আত্মঘাতী হয়েছেন তিনি। তবে সবদিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এর পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কিনা তা দেখা হচ্ছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, করোনার কারণে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে বিশ্ব অর্থনীতিতে। জার্মানিও এর বাইরে নয়। কীভাবে অর্থনীতিকে বাঁচাবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগছিলেন ৫৪ বছরের শেফার, এমনটাই জানা গিয়েছে।

সম্প্রতিও আর্থিক সাহায্যের জন্যে দরবারও করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। আর সেই চিন্তা থেকে কোনও পথ খুঁজে না পাওয়ার ফলেই এই পথ তিনি বেছে নেন বলে মনে করা হচ্ছে। শেফারের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন হেসে প্রদেশের প্রধান ভলকার বুফিয়ের। ঘটনার গভীর শোকপ্রকাশ করেছন তিনি। তিনি জানিয়েছেন, করোনার কারণে তলানিতে অর্থনীতি। প্রবল চাপের মুখে ছিলেন। কীভাবে এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করা যায় তা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে কাজ চালিয়ে গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন ভলকার বুফিয়।

  • 0 Comment(s)
Be the first person to like this.